11:21 PM, 12 Aug 2020
 জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক মোস্তফা সোহেল আর নেই

জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক, কবি ও মানবাধিকার সংগঠক মোস্তফা সোহেল (৫০) আর নেই।  (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। 

রাজধানীর গ্রিনলাইফ হাসপাতালে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তিনি কিডনিজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি এক ছেলে, স্ত্রী ও অসংখ্য গুনাগ্রাহী রেখে গেছেন।  বুধবার বাদ এশা যশোরের বেজপাড়া বিহারী কলোনী মসজিদে জানাজা শেষে স্থানীয় তালতলা কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

মোস্তফা সোহেল ১৯৭০ সালের পহেলা সেপ্টেম্বর যশোর শহরের বেজপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। এসএসসি ও এইচএসসি যশোরে সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স করেন। তিনি বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক ছিলেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে দেশী বিদেশী মানবাধিকার সংস্থায় কাজ করেছেন। কথাসাহিত্যিক হিসেবেও তিনি সুপরিচিত ছিলেন। তার লেখা ১৮টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে।
জাতীয় দৈনিকে তিনি নিয়মিত নানা বিষয়ে লিখেছেন। ১৯৯৯ সালে তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘হাত বাড়ালেই ছুঁয়ে  দেবো’ প্রকাশিত হয়। এছাড়া উলে­খযোগ গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে ‘নিঃসঙ্গ টারমিনাল’, ‘তুমি আমায় প্রথম ছুঁয়েছিলে’, ভালোবাসার এক রূপালি রাত, ‘আনন্দবাড়ি’, ‘একদিন ঝুম বৃষ্টিতে’, ‘মনপাহাড়’, ‘আমি কান পেতে রই’, ‘ভালোবাসা অথবা বিভ্রমের গল্প’, ‘সাদা মেঘে ওড়াই মৌনতা’, ‘সুন্দর তুমি এসেছিলে’, ‘চোখের আলোয় দেখেছিলাম’ ইত্যাদি উলে­যোগ্য। কথাসাহিত্যে অবদানের জন্য তিনি শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন পুরস্কারসহ বেশকিছু পুরস্কারে ভূষিত হন।

কথাসাহিত্যিক মোস্তফা সোহেলের মৃত্যুতে  প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান বাংলানামা পরিবারের পক্ষ থেকে লেখকের স্মৃতিতে গভীর শ্রদ্ধা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কবীর আলমগীর।