07:02 PM, 23 Apr 2018
সুফিয়া কামাল হল প্রশাসনের আচরণে উদ্বেগ

বাংলানামা ডেস্ক
ছাত্রীদের প্রতি ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হল প্রশাসনের আচরণে উদ্বেগ জানিয়ে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রোববার একটি বিবৃতি দিয়েছে।

সভাপতি আয়শা খানম ও সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বিবৃতিতে বলেন, আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে সংবাদ মাধ্যমে জানতে পালরাম যে, সরকারী চাকরীতে কোটা সংস্কারের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হলের তিনজন ছাত্রীকে গভীর রাতে হল থেকে যেভাবে বের করে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে তাতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ গভীর উদ্বেগ ও বিস্ময় প্রকাশ করছে। কারণ তাদের নিরাপত্তার বিষয়টি এখানে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলেও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার নীতিমালা মেনে ভোর ৬:০০টা পর্যন্ত অপেক্ষা করা যেত বলে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ মনে করে।  

সুফিয়া কামাল হলের আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পক্ষ থেকে চরম অমানবিক, অবমাননাকর আচরণ করা হয়েছে। এই আচরণ শুধু নারী হিসেবে তাদের মানবাধিকারকেই লঙ্ঘন করেনি, দেশের একজন নাগরিক হিসেবে তাদের গণতান্ত্রিক অধিকারকেও প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছাত্রীদের প্রতি এই আচরণ (গভীর রাতে হল থেকে ছাত্রীদের বের করে দেয়া, তাদের মোবাইল ফোনের তথ্য তল্লাশি) আমাদের বিস্মিত করেছে।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ হল ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সচেতন এবং আরো অধিক দায়িত্বশীল আচরণের দাবি জানাচ্ছে।